নিয়োগ পাচ্ছেন দলের পাহারাদার হিসেবে ----- ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন

Asiful

প্রকাশ:2021-03-07 15:06:11

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেছেন, দেশে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ও নেই, কোনো উপাচার্যও নেই। ব্যক্তিত্ব, ভাবমূর্তি, পান্ডিত্য  না দেখে সব উপাচার্য নিয়োগ করা হয় -তারা দল করে কিনা অর্থাৎ দলের পাহারাদার হিসেবে নিয়োগ করা হয়। তারা নিয়োগ পেয়েই মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব জমিদারি। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু যেভাবে উপাচার্য নিয়োগ করতেন তার সম্পূর্ণ বিপরীত পদ্ধতিতে তদবির আর আওয়ামী লীগের প্রতি শতভাগ অনুগত দেখে বর্তমানে উপাচার্য নিয়োগ করা হয়। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, আমার শিক্ষকরা যদি সারা বছর রাজনীতি করেন তবে কখন পড়াশোনা করবেন, করাবেন? নির্বাচনভিত্তিক নোংরা

রাজনীতিতে কোনো শিক্ষক সম্পৃক্ত হতে পারেন না। এ জন্য প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিন্ন আইন থাকতে পারে। শিক্ষকদের রাজনৈতিক মতাদর্শ থাকতে পারে। কিন্তু তারা রাজনৈতিক দলাদলি করতে পারবেন না। নির্বাচনও কমিয়ে দিতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় তদারকির প্রতিষ্ঠান ইউজিসিকে সরকার নিজেই ইচ্ছা করে ঠুঁটো জগন্নাথ করে রেখেছে। ইউজিসি বেশ কিছু উপাচার্যের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দিয়েছে। কিন্তু মন্ত্রণালয় কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এ কারণে ইউজিসির ভাবমূর্তি ক্ষুণ হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের হাত থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে আলাদা করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য নিয়োগ দিতে হবে সার্চ কমিটির মাধ্যমে। যে কমিটিতে সদস্য থাকবেন শিক্ষক, কিন্তু তাদের থাকবে না রাজনৈতিক সম্পৃক্ততা।

....