অর্থমন্ত্রীর কাছে বিনিয়োগকারীদের একগুচ্ছ দাবি

;

পুঁজিবাজারের উন্নয়ন আসন্ন অর্থবছরের (২০২২-২০২৩) প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে পাঁচটি দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। গতকাল বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের দপ্তরে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি পাঠিয়েছে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক।

আসন্ন বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব হবে এমন প্রত‌্যাশা করে আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বিনিয়োগকারীদের স্বর্থে আসন্ন বাজেট পুঁজিবাজারবান্ধব হওয়া জরুরী। তাই পুঁজিবাজারের ইতিবাচক গতি বাড়াতে অর্থের যোগান, বিনিয়োগ বাড়ানোসহ বেশকিছু দাবি তুলে ধরেছি। আসন্ন বাজেটের (২০২২-২০২৩ অর্থবছর) দাবিগুলো হলো- অপ্রদর্শিত অর্থ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ: অপ্রদর্শিত অর্থ বিনা শর্তে ১০ শতাংশ কর প্রদান করার শর্তে শুধুমাত্র পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ দিতে হবে। এতে পুঁজিবাজারে অর্থের যোগান বৃদ্ধি পাবে, বাজার গতিশীল হবে, বিদেশে অর্থপাচার বন্ধ হবে ও দেশীয় শিল্প উন্নয়ন বৃদ্ধি পাবে। এতে সরকারের প্রচুর পরিমাণে রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে।

করপোরেট কর কমানো: বর্তমানে তালিকাভুক্ত কোম্পানির করহার ২২ দশমিক ৫ শতাংশ এবং অতালিকাভুক্ত কোম্পানির করহার ৩০ শতাংশ। তালিকাভুক্ত কোম্পানির করহার আরও ৭ দশমিক ৫ শতাংশ কমিয়ে ১৫ শতাংশ করার দাবি করছি। এতে নতুন ভালো ভালো কোম্পানি তালিকাভুক্ত হতে আগ্রহী হবে। যার ফলে পুঁজিবাজার গতিশীল হবে এবং সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে।

লভ্যাংশের ওপর দ্বৈত কর প্রত্যাহার: লভ্যাংশের ওপর থেকে দ্বৈত প্রত্যাহার করতে হবে। কোম্পানিগুলো লভ্যাংশের ঘোষণার পূর্বে সরকারকে অগ্রীম যে কর দিয়ে থাকে সেটাকে চূড়ান্ত কর হিসাবে গণ্য করতে হবে। ভাল লভ্যাংশ পাওয়ার আশায় তখন পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগে আগ্রহী হবে। এতে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগ বাড়বে এবং পুঁজিবাজারের অস্থিরতা কমবে।

নূন্যতম ৫০ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদান: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর নিট মুনাফার নূন্যতম ৫০ শতাংশ লভ্যাংশ হিসাবে শেয়ারহোল্ডারদের প্রদান করার ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি। উপযুক্ত পরিমান লভ্যাংশ পাওয়ার প্রত্যাশায় পুঁজিবাজারে দীর্ঘ মেয়াদী বিনিয়োগ বাড়বে।

পুঁজিবাজারে অর্থের যোগান: পুঁজিবাজার মধ্যস্থতাকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের বিনিয়োগ সক্ষমতা বাড়ানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এতে বাজারে অর্থের যোগান বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া পুঁজিবাজারের দুঃসময়ে ওই প্রতিষ্ঠানসমূহ পুঁজিবাজারকে সাপোর্ট দিতে সক্ষম হবে।

মন্তব্য করুন






আর্কাইভ